চট্টগ্রামে গুরুত্বহীন মামলার ‘ডাম্পিং স্টেশন’ পিবিআই – দৈনিক গণঅধিকার

চট্টগ্রামে গুরুত্বহীন মামলার ‘ডাম্পিং স্টেশন’ পিবিআই

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ৯:১১
চট্টগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ও চাঞ্চল্যকর মামলার তদন্তের দায়িত্ব যথাসময়ে পাচ্ছে না পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই। ঘটনার দুই-তিন মাস পর এমনকি এক থেকে পাঁচ বছর পরও এ ধরনের মামলার তদন্তভার দেওয়া হচ্ছে পিবিআইর হাতে। ততদিনে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মামলার আলামত নষ্ট হয়ে যায়। সাক্ষী খুঁজে পাওয়া যায় না। তদন্ত বিলম্বিত হওয়ায় ন্যায়বিচার থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে বিচারপ্রার্থী। অভিযোগ উঠেছে, পিবিআইর শিডিউলভুক্ত হওয়ার পরও অনেক ক্ষেত্রে থানা বা ডিবি পুলিশ মামলা হস্তান্তরে গড়িমসি করে। চিঠি চালাচালিতেই সময় পার হয়ে যায়। ততদিনে মামলা অনেকটাই গুরুত্বহীন হয়ে পড়ে। মূলত চাঞ্চল্যকর মামলার তদন্তভার সঠিক সময়ে না পাওয়ায় তদন্তের জন্য বিশেষভাবে সৃষ্ট পুলিশের এ ইউনিটটিও যেন হারাচ্ছে বিশেষত্ব। পরিণত হচ্ছে গুরুত্বহীন মামলার ডাম্পিং স্টেশনে! জানা গেছে, পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলে বর্তমানে ১৯৩টির মতো জিআর মামলা তদন্তাধীন রয়েছে। যেগুলো থানা থেকে এসেছে। এছাড়া কোর্ট থেকে প্রাপ্ত ৬৭৮টি সিআর মামলা রয়েছে। তদন্তাধীন মামলার মধ্যে ৩৯টি হত্যা মামলা। পিবিআই মেট্রো অঞ্চল দেশজুড়ে আলোচিত মিতু হত্যা মামলা তদন্তের দায়িত্ব পাওয়ার পর অল্প সময়ের মধ্যে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। এই মামলাটি থানা ও ডিবি পুলিশ ঘুরে পিবিআইতে আসে। পিবিআই তদন্তভার নেওয়ার পর দেখা যায়, পুরো মামলার চিত্রই পালটে যায়। সাক্ষ্য-প্রমাণে উঠে আসে মামলার বাদী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার নিজেই এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। পরে তাকেসহ অপরাপর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন পিবিআইর তৎকালীন পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা। বাবুল আক্তার স্ত্রী খুনের মামলার বাদী থেকে আসামি হয়ে বর্তমানে কারাগারে আছেন। মামলাটির সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতে। পতেঙ্গা এলাকায় শিশু আয়াত হত্যা ছাড়াও চট্টগ্রাম নগরীর চাঞ্চল্যকর শিশু আয়নি ও ইলমা হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনেও পিবিআই দক্ষতা দেখিয়েছে। এসব মামলার ছায়াতদন্ত শুরু করে সফল হয় পিবিআই। ২০১৮ সাল থেকে গত চার বছরে পিবিআইতে ৩৯টি হত্যা মামলার তদন্তভার দেওয়া হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য-কোতোয়ালি থানার রিপেন সিংহ হত্যা ও মাধব দেবনাথ হত্যা মামলা, চান্দগাঁও থানার বিবি রহিমা ও মিনু আক্তার হত্যা মামলা, বায়েজিদ বোস্তামী থানার আবুল আলী হত্যা মামলা, পাঁচলাইশ থানার ইকবাল হোসেন চৌধুরী হত্যা মামলা, খুলশী থানার আবদুল জব্বার হত্যা মামলা, শিশু ইসমাম হায়দার হত্যা মামলা, ডবলমুরিং থানার নুরুল আলম হত্যা মামলা, হোসনে আরা বেগম ও পারভীন আক্তার হত্যা মামলা, সোহেল হত্যা মামলা, চকবাজার থানার রিফাত সুলতানা হত্যা মামলা ও হালিশহর থানার নেজাম উদ্দিন মুন্না হত্যা মামলা। এর মধ্যে পুলিশ হেডকোয়ার্টারের আদেশে রিপেন সিংহ হত্যা মামলা তদন্তের ভার গ্রহণ করে পিবিআই। ২০১৮ সালের ১৬ অক্টোবর মামলাটি করা হয়। দুই মাস পর ২০ ডিসেম্বর এ মামলার দায়িত্ব পায় পিবিআই মেট্রো অঞ্চল। চান্দগাঁও থানায় বিবি রহিমা হত্যা মামলা হয় ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর। এই মামলাটি পিবিআইতে আসে পরের বছরের ৯ জুন। বায়েজিদ বোস্তামী থানায় আবদুল আলী হত্যার ঘটনায় মামলা হয় ২০১৫ সালের ২৩ মার্চ। মামলাটি পিবিআইতে আসে ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর। পাঁচলাইশ থানায় ইকবাল হোসেন চৌধুরী হত্যা মামলা হয় ২০১৬ সালের ১১ সেপ্টেম্বর। এ মামলাটি পিবিআইতে আসে ২০২০-এর ২৫ নভেম্বর। ডবলমুরিং থানায় নুরুল আলম হত্যা মামলা হয় ২০২০-এর ২৪ সেপ্টেম্বর। পিবিআইতে আসে পরের বছরের ১৮ জানুয়ারি। খুলশী থানায় ৯ বছরের শিশু ইসমাম হায়দার খুনের ঘটনায় মামলা হয় ২০১৭ সালের মার্চে। এ মামলা পিবিআইতে আসে ২০২১-এর ২৮ জানুয়ারি। মামলা তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পিবিআইর একাধিক কর্মকর্তা জানান, অনেক চাঞ্চল্যকর মামলা রয়েছে, যেগুলো দেরিতে পিবিআইতে এসেছে। তারা তদন্তের দায়িত্ব নিয়ে দেখতে পান মামলার আলামত নষ্ট হয়ে গেছে। ঠিকমতো সাক্ষ্য নেওয়া হয়নি। আসামি পালিয়ে গেছে বা আত্মগোপনে চলে গেছে। তাই এ ধরনের মামলা তদন্ত করে সঠিক চিত্র তুলে আনা বা প্রকৃত আসামিদের খুঁজে বের করা দুরূহ হয়ে পড়ে। সূত্র জানায়, ৫ জানুয়ারি ২০১৬ সালে জারি করা পুলিশ হেডকোয়ার্টাসের প্রজ্ঞাপনে বলা আছে, তফশিলভুক্ত কোনো অপরাধ সংক্রান্ত কোনো ঘটনা সংঘটনের সঙ্গে সঙ্গে অথবা মামলার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রাথমিক তথ্য বিবরণীর (এফআইআর) অনুলিপি থানার অফিসার ইনচার্জ জেলার বা নগরীর দায়িত্বপ্রাপ্ত পিবিআই কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন। ততক্ষণে ঘটনাস্থল সংরক্ষণ, প্রাথমিক তদন্ত ও আসামি গ্রেফতার করতে পারবে থানা পুলিশ। পিবিআই তদন্ত কার্যক্রম শুরু করলে আইজিপির লিখিত অনুমোদন ছাড়া অন্য কোনো সংস্থায় ওই মামলা হস্তান্তর করা যাবে না। এ বিষয়ে পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের পুলিশ সুপার নাইমা সুলতানা বলেন, চাঞ্চল্যকর অনেক মামলার তদন্তভার এমন সময় পিবিআইতে আসে যখন মামলার ক্রাইমসিন বা আলামত নষ্ট হয়ে যায়। আসামিরা হয়তো ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে ফেলেছে। বাদী তদন্তে সন্তুষ্ট না হয়ে আদালতে আবেদন করলে সেক্ষেত্রে অনেক সময় আদালতের নির্দেশে মামলার তদন্তভার পিবিআইতে আসছে। আবার অনেক লেখালেখির পর পুলিশ হেডকোয়ার্টারের নির্দেশেও তদন্তভার পিবিআইতে আসছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে স্বউদ্যোগে পিবিআই মামলার তদন্তভার নিয়ে নেয়। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে ঘটনার পরপর মামলার তদন্তভার যদি দ্রুত সময়ে পিবিআইর ওপর অর্পিত হয় সেক্ষেত্রে তদন্ত যেমন সহজ হয়, তেমনি মামলা প্রমাণেও সমস্যা হয় না।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন খুলনায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা আবেদ আলীর ছেলে সিয়ামকে উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় না হওয়ায় দেশের অর্ধেক রোগী বিদেশে চলে যান : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদারীপুরে দুই শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু; আটক মা ২ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অপরাধে মধুখালীতে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অপসারণ চন্দনা কমিউটার ট্রেনের স্টপেজ পেলো ফরিদপুর ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লিফটের জন্য ব্যাপক ভোগান্তি পাবিপ্রবিতে কোটা সংস্কার দাবিতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল দৌলতদিয়ায় বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে পদ্মার পানি বালিয়াকান্দিতে স্কুলের সামনে ইজিবাইকচাপায় ছাত্রী নিহত বেনাপোলে ১৮ টি সোনার বারসহ আটক ১ চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ৮ টি সোনার বারসহ যুবক আটক আবারও কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছে ১৩ কিশোর-কিশোরী বেনাপোল সীমান্তে ৯টি সোনার বারসহ আটক ১ যশোরে ‘জিন সাপ’ আতঙ্ক, হাসপাতালে ভর্তি ১০ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২১৬ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আয় বেনাপোল কাস্টমসে যশোরে সিজার অপারেশন করলেন নাক কান গলার চিকিৎসক কোটা সংস্কারের দাবিতে ফের কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের