দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন রাজশাহী বিভাগে ৩৯ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী ৪৫৩ জন – দৈনিক গণঅধিকার

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন রাজশাহী বিভাগে ৩৯ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী ৪৫৩ জন

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১১ আগস্ট, ২০২৩ | ৭:৫৭
রাজশাহী বিভাগের আট জেলার ৩৯ সংসদীয় আসনে বিভিন্ন দল ও সংগঠনের ৪৫৩ জন প্রার্থী মাঠে সক্রিয় আছেন। তারা নিজ নিজ দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের সর্বাধিক ২২০, বিএনপির ১৩৮, জাতীয় পার্টির ৪৬, জামায়াতে ইসলামীর ২৭ এবং অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র ২২ জন রয়েছেন। বিভাগের ৩৯টি আসনে বিভিন্ন দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নামের তালিকা নিচে তুলে ধরা হলো- রাজশাহী জেলার ছয়টি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার ছয়টি আসনে বিভিন্ন দলের ৬৯ প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। রাজশাহী-১ আসনে (গোদাগাড়ী-তানোর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী, গোলাম রাব্বানী, আসাদুজ্জামান, তাজবুল ইসলাম, আখতারুজ্জামান, আদিবা আনজুম মিতা এমপি, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের স্ত্রী আয়েশা আক্তার ডালিয়া ও সাবেক পুলিশ কমিশনার মতিউর রহমান; বিএনপির মেজর জেনারেল (অব.) শরিফ উদ্দিন, সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হকের স্ত্রী আভা হক ও ভাগ্নে ব্যারিস্টার মাহফুজুর রহমান মিলন; জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন বিশ্বাস; জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির অধ্যাপক মজিবুর রহমান (সাবেক এমপি)। রাজশাহী-২ আসনে (সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-১৪ দলীয় জোটের নেতা, বর্তমান এমপি ও ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা; আওয়ামী লীগের সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের পত্নী শাহীন আকতার রেনি, মোহাম্মদ আলী কামাল, শফিকুর রহমান বাদশা, ডাবলু সরকার ও আহসানুল হক পিন্টু; বিএনপির সাবেক সিটি মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, সাবেক সিটি মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, অ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ইশা; জাতীয় পার্টির সাইফুল ইসলাম স্বপন; জামায়াতে ইসলামীর এমাজউদ্দিন মণ্ডল। রাজশাহী-৩ আসনে (পবা-মোহনপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আয়েন উদ্দিন, বেগম আখতার জাহান, আসাদুজ্জামান আসাদ, রবিউল আলম বাবু; বিএনপির শফিকুল হক মিলন, সৈয়দ শাহীন শওকত, মতিউর রহমান মন্টু, রায়হানুল হক রায়হান; জাতীয় পার্টির শাহাবুদ্দিন বাচ্চু। রাজশাহী-৪ আসনে (বাগমারা) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, জাকিরুল ইসলাম সান্টু, তাহেরপুরে মেয়র আবুল কালাম আজাদ ও রাবির সাবেক অধ্যাপক পিএম শফিকুল ইসলাম; বিএনপির সাবেক এমপি অধ্যাপক আবদুল গোফুর, তোফাজ্জল হোসেন তপু, আবদুর রাজ্জাক, জাতীয় পার্টির আবু তালেব; জামায়াতে ইসলামীর আবদুল আহাদ কবিরাজ। রাজশাহী-৫ আসনে (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ডা. মনসুর রহমান, আবদুল ওয়াদুদ দারা, আহসানুল হক মাসুদ ও জিএম হীরা বাচ্চু; বিএনপির সাবেক এমপি নাদিম মোস্তফা, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম মণ্ডল, আবু বাক্কার সিদ্দিক; জাতীয় পার্টির আবুল হোসেন। রাজশাহী-৬ আসনে (বাঘা-চারঘাট) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, সাবেক এমপি রায়হানুল হক রায়হান, লায়েব উদ্দিন ও বাঘা পৌর মেয়র আক্কাছ আলী; বিএনপির আবু সাঈদ চাঁদ, বজলুর রহমান, আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, গোলাম মোস্তফা মামুন, দেবাশীষ রায় মধু ও রমেশ দত্ত, নুরুজ্জামান খান মানিক; জাতীয় পার্টির সামসুদ্দিন রিন্টু ও ইকবাল হোসেন; জামায়াতে ইসলামীর নামজুল হোসেন। বগুড়া জেলার সাতটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার সাতটি আসনে বিভিন্ন দলের ৮০ জন প্রার্থী মাঠে সক্রিয় আছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের ৩৫, বিএনপির ২৭, জাতীয় পার্টির ৯, জামায়াতে ইসলামীর ছয়, জাসদের এক এবং স্বতন্ত্র দুজনের নাম পাওয়া গেছে। বগুড়া-১ আসনে (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি শাহাদারা মান্নান শিল্পী, কৃষিবিদ কেএসএম মোস্তাফিজার রহমান শ্যামল, আবদুর রাজ্জাক, এসএম মোজাহেদুল ইসলাম বিপ্লব, শাহজাদী আলম লিপি, সারিয়াকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম মন্টু, পৌর মেয়র মতিউর রহমান মতি ও সাবেক মেয়র আলমগীর শাহী সুমন; বিএনপির সাবেক এমপি কাজী রফিকুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেন চৌধুরী, একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির ও মাসুদুর রহমান হিরু মণ্ডল, জাতীয় পার্টির অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম ও জিএম বাবু মণ্ডল; জামায়াতের ইসলামীর মো. শাহাবুদ্দিন। বগুড়া-২ আসনে (শিবগঞ্জ) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের তৌহিদুর রহমান মানিক, আকরাম হোসেন ও মোবাশ্বের হোসেন স্বরাজ; বিএনপির সাবেক এমপি একেএম হাফিজুর রহমান ও মীর শাহে আলম; জাতীয় পার্টির বর্তমান এমপি শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ; জামায়াতে ইসলামীর সাবেক এমপি মাওলানা শাহাদাতুজ্জামান; নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। বগুড়া-৩ আসনে (আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের সিরাজুল ইসলাম খান রাজু, অজয় কুমার সরকার, আশরাফুল ইসলাম মন্টু, প্রবাসী ড. জামিল তালুকদার, আমিনুর রহমান ও মিজানুর রহমান খান সেলিম; বিএনপির আবদুল মুহিত তালুকদার, ফজলুল বারী তালুকদার, হামিদুল হক চৌধুরী, মাছুদা মোমিন, আফজাল হোসেন নয়ন, ফরিদ আহমেদ, আবদুল মান্নান ও ফিরোজ মো. কামরুল হাসান; জাতীয় পার্টির বর্তমান এমপি অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম তালুকদার, ক্যাপ্টেন (অব.) জাকারিয়া হোসেন, জামায়াতে ইসলামীর আবদুল গণি মণ্ডল। বগুড়া-৪ আসনে (কাহালু-নন্দীগ্রাম) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের হেলাল উদ্দিন কবিরাজ, কামাল উদ্দিন কবিরাজ, অধ্যক্ষ আহসানুল হক, মুশফিকুর রহমান কাজল ও নন্দীগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল আশরাফ জিন্নাহ; বিএনপির সাবেক এমপি মোশারফ হোসেন, সাবেক এমপি ডা. জিয়াউল হক মোল্লা ও রাফি পান্না, জাতীয় পার্টির শাহীন মোস্তফা কামাল ফারুক; জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা তায়েব আলী; জাসদের (ইনু) বর্তমান এমপি একেএম রেজাউল করিম তানসেন; স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম। বগুড়া-৫ আসনে (শেরপুর-ধুনট) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি হাবিবুর রহমান, মজিবর রহমান মজনু, অধ্যক্ষ সামছুল আলম জয় ও টিআইএম নুরুন্নবী তারিক; বিএনপির সাবেক এমপি জিএম সিরাজ, শেরপুর পৌর মেয়র জানে আলম খোকা ও মাহবুবুর রহমান হারেজ; জামায়াতে ইসলামীর দবিবুর রহমান। বগুড়া-৬ আসনে (সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি রাগেবুল আহসান রিপু, অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম মন্টু, টি জামান নিকেতা, মাসুদার রহমান মিলন ও সুলতান মাহমুদ খান রনি; বিএনপির সাবেক এমপি জিএম সিরাজ, রেজাউল করিম বাদশা, সাইফুল ইসলাম, মাহবুবর রহমান ও সরকার বাদল; জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর; জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা আবিদুর রহমান সোহেল। বগুড়া-৭ আসনে (গাবতলী-শাজাহানপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের ডা. মোস্তফা আলম নান্নু, আসাদুর রহমান দুলু, শাহাদত আলম ঝুনু ও রফি নেওয়াজ খান রবিন; বিএনপির সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, মোরশেদ মিল্টন; জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি আলতাফ আলী ও আমিনুল ইসলাম পিন্টু; বর্তমান এমপি রেজাউল করিম বাবলু। পাবনা জেলার পাঁচটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার পাঁচটি আসনে বিভিন্ন দলের ৪৪ প্রার্থী মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। পাবনা-১ আসনে (সাঁথিয়া-বেড়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ও ডেপুটি স্পিকার শামসুল ইসলাম টুকু ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল আওয়াল; বিএনপির খায়রুন্নাহার খানম ও সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা সালাউদ্দিন; জাতীয় পার্টির সরদার মো. শাহজাহান; গণফোরামের অধ্যাপক আবু সাইদ; জামায়াতে ইসলামীর ডা. আবদুল বাছেদ। পাবনা-২ আসনে (সুজানগর-বেড়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আহমেদ ফিরোজ কবির, কামরুজ্জামান উজ্জ্বল, আবদুল আজিজ খান, সাবেক সচিব মির্জা আব্দুল জলিল, সাবেক সচিব মজিবুর রহমান, সাবেক এমপি খন্দকার আজিজুল হক আরজু; বিএনপির সেলিম রেজা হাবিব, কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, আবদুল হালিম সাজ্জাদ। পাবনা-৩ আসনে (চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া ও ফরিদপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি মকবুল হোসেন, সাবেক এমএলএ ও এমপিএ আবু মো. ইউনুস আলীর ছেলে বায়েজিদ দৌলা বিপু, আবদুল হামিদ মাস্টার, চাটমোহর পৌর মেয়র সাখাওয়াত হোসেন সাখো, আতিকুর রহমান আতিক, মেজর জেনারেল (অব.) ফসিউর রহমান; বিএনপির মাকসুদুর রহমান মাসুদ খন্দকার ও হাসাদুল ইসলাম হীরা। পাবনা-৪ আসনে (ঈশ্বরদী ও আটঘরিয়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস, সাবেক এমপি পাঞ্জাব আলী বিশ্বাস, রেজাউল রহিম লাল, আইনজীবী রবিউল আলম বুদু, গালিবুর রহমান শরীফ, সাবেক পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ও ব্যারিস্টার সৈয়দ আলী জিরু; বিএনপির হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার; জাতীয় পার্টির বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আলী ও রেজাউল করিম খোকন; জামায়াতে ইসলামীর আবু তালেব মণ্ডল। পাবনা-৫ আসনে (সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি গোলাম ফারুক প্রিন্স, মোশারোফ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বেবী ইসলাম, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর সাবেক এমএনএ বগা মিয়ার ছেলে মোস্তহাক আহমেদ সুইট, কামরুল হাসান মিন্টু ও মো. আরশাদ আদনান রনি; বিএনপির শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস; ওয়ার্কার্স পাটির জাকির হোসেন; জাতীয় পার্টির আবদুল কাদের খান কদর, জামায়াতে ইসলামীর ইকবাল হোসাইন; ইসলামী আন্দোলনের আরিফ বিল্লাহ। নওগাঁ জেলার ছয়টি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার ছয়টি আসনে বিভিন্ন দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংখ্যা ৭২ জন। নওগাঁ-১ আসনে (নিয়ামতপুর-পোশরা-সাপাহার) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ও খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, খালেকুজ্জামান তোতা ও রেজাউল হাসান রানা; বিএনপির সাবেক এমপি ডা. ছালেক চৌধুরী, মোস্তাফিজুর রহমান, অধ্যক্ষ আবদুর নূর ও শাহ মোজাম্মেল হোসেন চৌধুরী; জাতীয় পার্টির আকবর আলী কালু ও ইসলামী আন্দোলনের মোস্তাফিজুর রহমান। নওগাঁ-২ আসনে (পত্নীতলা-ধামইরহাট) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি শহীদুজ্জামান সরকার, এএইচএম ইঞ্জিনিয়ার আখতারুল আলম, আমিনুল হক, আবদুল গাফ্ফার, মাহমুদ রেজা মেহেদী; বিএনপির সাবেক এমপি শামসুজ্জোহা খান, খাজা নাজিবুল্লাহ চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, আবদুল হামিদ; জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন, জামায়াতে ইসলামীর ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বিউটি ও ইসলামী আন্দোলনের দেলোয়ার হোসেন। নওগাঁ-৩ আসনে (মহাদেবপুর-বদলগাছী) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার, সাবেক এমপি আকরাম হোসেন চৌধুরী, সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, এনামুল হক ও মাহবুব উল মান্নাফ শুভ; বিএনপির সাবেক ডেপুটি স্পিকার আখতার হামিদ সিদ্দিকীর ছেলে পারভেজ আরেফিন সিদ্দিক জনি, রবিউল আলম বুলেট ও ফজলে হুদা আকন্দ বাবুল; জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন ও সাবেক এমপি হুমায়ন কবির চৌধুরী; জামায়াতে ইসলামীর মীর আবুল কালাম আজাদ; ইসলামী আন্দোলনের শহিদুল ইসলাম; বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) জয়নাল আবেদীন মুকুল। নওগাঁ-৪ আসনে (মান্দা) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, ব্রহানী সুলতান মামুদ গামা, অ্যাডভোকেট নাহিদ মোরশেদ ও আব্দুল লতিফ শেখ; বিএনপির মোখলেছুর রহমান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. ইকরামুল বারি টিপু ও মো. আবদুল মতিন; জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট আলতাফ হোসেন; জামায়াতে ইসলামীর খন্দকার আবদুর রকিব। নওগাঁ-৫ আসনে (সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন, সাবেক এমপি আবদুল মালেক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি বকু, উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক, দেওয়ান ছেকার আহম্মেদ শিষান ও খোদাদাদ খান পিটু; বিএনপির লে. কর্নেল (অব.) আবদুল লতিফ খান, পৌর মেয়র নজমুল হক সনি ও জাহিদুর রহমান ধলু; জাতীয় পার্টির ইখতারুল ইসলাম বকুল; জামায়াতে ইসলামীর অ্যাডভোকেট আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম। নওগাঁ-৬ আসনে (আত্রাই-রানীনগর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আনোয়ার হোসেন হেলাল, সাবেক এমপি ইস্রাফিল আলমের স্ত্রী সুলতানা পারভীন বিউটি, সাবেক এমপি ওহিদুর রহমানের ছেলে ওমর ফারুক সুমন, উপজেলা চেয়ারম্যান এবাদুর রহমান, নওশের আলী ও ইউসুব আলী প্রামাণিক; বিএনপির সাবেক এমপি আলমগীর কবির, আনোয়ার হোসেন বুলু, রেজাউল ইসলাম রেজু, ইছাহক আলী, সোহবার হোসেন ও এসএম আল ফারুক জেমস। জাতীয় পার্টির আবদুস সালাম সরদার, হাসান আলী ও মোফাজ্জল হোসেন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির খন্দকার ইন্তেখাব আলম; জামায়াতে ইসলামীর হারুন-উর-রশিদ ও গোলাম মোস্তফা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার তিনটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার তিনটি আসনে বিভিন্ন দলের মোট মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংখ্যা ৪৩ জন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনে (শিবগঞ্জ) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাবেক সচিব জিল্লার রহমান, সাবেক এমপি গোলাম রাব্বানি, নজমুল হক ও প্রকৌশলী মাহতাব উদ্দীন; বিএনপির সাবেক এমপি অধ্যাপক শাহজাহান মিয়া ও সৈয়দ শাহীন শওকত; জাসদের আজিজুর রহমান আজিজ; জামায়াতে ইসলামীর আমির অধ্যাপক ড. কেরামত আলী। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে (গোমস্তাপুর, নাচোল ও ভোলাহাট) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি জিয়াউর রহমান, সাবেক এমপি গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবদুস সামাদ, মোহাম্মদ আলী সরকার, চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি, রফিকুল আলম সৈকত জোয়ার্দার, কামরুল হাসান লিংকন, গোমস্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হুমায়ুন রেজা, জামালউদ্দিন, ভোলাহাট উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন, হালিমা খাতুন, ডা. অজিত দাস ও গোলাম মোহাম্মদ ফিটু; বিএনপির সাবেক এমপি আমিনুল ইসলাম, বাইরুল ইসলাম, আসাদুল্লাহ আহমদ, মাসউদা আফরোজ সুচি, নুরুল ইসলাম সেন্টু ও তারিক আহমদ; জাতীয় পার্টির আবদুর রাজ্জাক ও আবদুর রশিদ; জামায়াতে ইসলামীর মিজানুর রহমান। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে (সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আবদুল ওদুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর মেয়র মুখলেসুর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ও ডা. গোলাম রাব্বানি; বিএনপির সাবেক এমপি হারুনুর রশিদ, গোলাম জাকারিয়া জাকা ও রফিকুল ইসলাম; জাতীয় পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল; জামায়াতে ইসলামীর আমির নুরুল ইসলাম বুলবুল। জয়পুরহাট জেলার দুটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার দুটি আসনে সম্ভাব্য প্রাথী ২৪ জন। জয়পুরহাট-১ আসনে (সদর ও পাঁচবিবি) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি সামছুল আলম দুদু, আরিফুর রহমান রকেট, নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল, গোলাম হক্কানী, জাকির হোসেন মন্ডল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম সোলায়মান আলী, ডা. রোকেয়া সুলতানা, জয়পুরহাট পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, পাঁচবিবির মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব ও জহুরুল ইসলাম; বিএনপির ফজলুর রহমান, সাবেক মন্ত্রী আবদুল আলীমের ছেলে ফয়সাল আলীম ও মাসুদ রানা প্রধান; জামায়াতে ইসলামীর ডা. ফজলুর রহমান সাঈদ, জাতীয় পার্টির তিতাস মোস্তফা; জাসদের আমেজ উদ্দিন। জয়পুরহাট-২ আসনে (কালাই-ক্ষেতলাল-আক্কেলপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, তাজমহল হীরক, মাহফুজ রহমান চৌধুরী ও তাইফুল ইসলাম তালুকদার; বিএনপির সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা ও ওবায়দুর রহমান চন্দন, জামায়াতে ইসলামীর এসএম রাশেদুল ইসলাম সবুজ; জাতীয় পার্টির আবু সাঈদ নুরুল্লাহ মাসুম; জাসদের আবুল খায়ের সাখাওয়াৎ হোসেন। নাটোর জেলার চারটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার চারটি আসনে বিভিন্ন দলের সম্ভাব্য ৫৩ জন মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। নাটোর-১ আসনে (লালপুর-বাগাতিপাড়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি শহিদুল ইসলাম বকুল, সাবেক এমপি আবুল কালাম আজাদ, শামীম আহম্মেদ সাগর, আবদুল কুদ্দুস, কর্নেল (অব.) রমজান আলী সরকার, লালপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ইসাহাক আলীম, আফতাব হোসেন ঝুলফু, আতিকুল হক আতিক, আনিসুর রহমান, অধ্যাপক আবুল হোসেন, আরিফুল ইসলাম উজ্জল, কাজল রায় ও হুমায়ুন কবির: বিএনপির সাবেক মন্ত্রী ফজলুর রহমান পটলের স্ত্রী কামরুন্নাহার শিরিন ও তাইফুল ইসলাম টিপু; জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি এমএ তালহা, ব্যারিস্টার আশিকুর রহমান ও মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ; জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ; ওয়ার্কার্স পার্টির ইব্রাহিম খলিল; কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মনজুরুল ইসলাম বিমল; সাম্যবাদী দলের মনজুরুল ইসলাম মিঠু। নাটোর-২ আসনে (সদর ও নলডাঙ্গা) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুল, শরিফুল ইসলাম রমজান, সিরাজুল ইসলাম, সাবেক এমপি আহাদ আলী সরকার, আবদুল মালেক শেখ, উমা চৌধুরী ও এমরান সোনার; বিএনপির রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন ছবি, জাতীয় পার্টির সাবেক সচিব নুরুন নবী মৃধা; জামায়াতে ইসলামীর অধ্যাপক ইউনুস আলী। নাটোর-৩ আসনে (সিংড়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি জুনাইদ আহমেদ পলক, সিংড়া উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক, সরফরাজ নেওয়াজ বাবু; বিএনপির সাবেক এমপি অধ্যাপক কাজী গোলাম মোর্শেদ, দাউদার মাহমুদ, আনোয়ারুল ইসলাম আনু ও ব্যারিস্টার ইউসুফ আলী; জাতীয় পার্টির প্রকৌশলী আনিসুর রহমান, ইসলামী আন্দোলনের মোস্তফা ওয়ালিউল্লাহ্ সেলিম; ওয়ার্কার্স পার্টির মিজানুর রহমান মিজান। নাটোর-৪ আসনে (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুস, বড়াইগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, গুরুদাসপুর পৌর মেয়র শাহনেওয়াজ মোল্লা, বনপাড়া পৌর মেয়র কেএম জাকির হোসেন, আহম্মদ আলী ও গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন: বিএনপির আবদুল আজিজ, অ্যাডভোকেট জন গমেজ ও সাবেক এমপি মোজাম্মেল হকের ছেলে ব্যারিস্টার আবু হেনা মোস্তফা কামাল রঞ্জু; জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি আবুল কাশেম সরকার, অধ্যাপক আলাউদ্দিন মৃধা; জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা আবদুল হাকিম। সিরাজগঞ্জ জেলার ছয়টি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী : জেলার ছয়টি আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংখ্যা ৬৮ জন। সিরাজগঞ্জ-১ আসনে (কাজীপুর-সিরাজগঞ্জ সদর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি তানভির শাকিল জয় ও শাহরিন সেলিম রিপন; বিএনপির কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা, নাজমুল হাসান তালুকদার রানা, সেলিম রেজা ও রবিউল হাসান, তহজিবুল ইনাম তালুকদার তুষার। সিরাজগঞ্জ-২ আসনে (সদর-কামারখন্দ) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ডা. হাবিবে মিল্লাত, জান্নাত আরা হেনরি, কেএম হোসেন আলী হাসান, পৌর মেয়র আবদুর রৌউফ মুক্তা ও প্রবাসী ডা. মাসুদুল হাসান; বিএনপির ইকবাল হাসান খান মাহমুদ টুকু, তার স্ত্রী রুমানা মাহমুদ, সাইদুর রহমান বাচ্চু ও মির্জা মোস্তফা জামান, জাতীয় পার্টির আমিনুল ইসলাম ঝন্টু ও জামায়াতে ইসলামীর অধ্যাপক জাহিদুল ইসলাম। সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে (রায়গঞ্জ-তাড়াশ-সলঙ্গা) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি ডা. আবদুল আজিজ, ড. হোসেন মনসুর, আবদুল হাদি আলমাজি জিন্নাহ, আবুল কালাম আজাদ হৃদয়, হাসানুজ্জামান, আমিনুল ইসলাম সিহাব, ফেরদৌস আলম তালেব, সাখাওয়াত হোসেন সুইট, স্বপন কুমার রায়, লুৎফর রহমান দিলু, আবদুল হালিম খান দুলাল, সঞ্জিত কর্মকার ও তাড়াশ উপজেলা চেয়ারম্যান ইমরুল হোসেন তালুকদার ইমন; বিএনপির আবদুল মান্নান তালুকদার, ভিপি আইনুল হক, দুলাল হোসেন খান ও সাইফুল ইসলাম শিশির; জাতীয় পার্টির শহিদুল ইসলাম মাস্টার। সিরাজগঞ্জ-৪ আসনে (উল্লাপাড়া) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি তানভীর ইমাম, জাহিদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম ও মুক্তি মির্জা; বিএনপির এসএম নজরুল ইসলাম, আকবর আলী, আবদুল ওয়াহাব ও আজাদ হোসেন; জাতীয় পার্টির হিল্টন প্রামাণিক; জামায়াতে ইসলামীর রফিকুল ইসলাম খান। সিরাজগঞ্জ-৫ আসনে (বেলকুচি-চৌহালী) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি আবদুল মমিন মন্ডল, সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ বিশ্বাস, মীর মোশারফ হোসেন, ফারুক সরকার, বেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সাজেদুল, মোহাম্মদ আলী আকন্দ ও নজরুল ইসলাম মন্ডল; বিএনপির সাবেক প্রতিমন্ত্রী মেজর (অব.) মঞ্জুর কাদের, আমিনুল ইসলাম খান আলিম, গোলাম মওলা খান বাবলু, মেজর (অব.) আবদুল্লাহ আল মামুন, মাহফুজা খাতুন ও রাকিবুল করিম খান পাপ্পু; জাতীয় পার্টির রফিকুল ইসলাম খান; জামায়াতে ইসলামীর অধ্যক্ষ আলী আলম। সিরাজগঞ্জ-৬ আসনে (শাহজাদপুর) মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন-আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি মেরিনা জাহান কবিতা, চয়ন ইসলাম, ডা. আবদুর রহমান ও ড. সাজ্জাদ হায়দার লিটন; বিএনপির ড. এমএ মুহিদ, শফিকুল ইসলাম সালাম, গোলাম সরোয়ার ও হুসাইন শহীদ মাহমুদ গ্যাদন; জাতীয় পার্টির মোক্তার হোসেন। প্রতিবেদনটি তৈরিতে সহায়তা করেছেন পাবনা প্রতিনিধি আখতারুজ্জামান আখতার, নওগাঁ প্রতিনিধি আবু সাঈদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি মনোয়ার হোসেন জুয়েল, নাটোর প্রতিনিধি শহিদুল হক সরকার, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি জেহাদুল ইসলাম ও জয়পুরহাট প্রতিনিধি শাহজাহান সিরাজ মিঠু।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
জাকারিয়া সৌখিনের ‘লাভ রেইন’; অভিনয়ে তৌসিফ-নীহা সুপ্রিম কোর্ট বারের চেম্বার রাত ৮টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে সাকিব-তামিমের বন্ধুত্বে ফাটলের নেপথ্যে জামালপুর থেকে রেলযোগে ঢাকা আনতে গরুপ্রতি খরচ হচ্ছে ৫০০ টাকা ৩ ম্যাচের টানা সুপার এইটে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ অটোরিকশা চালকের চাঁদাবাজি মামলায় লক্ষীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কারাগারে ‘সাকিব ভাইয়ের পারফরম্যান্স নিয়ে দলের কেউ চিন্তিত নয়’ : শান্ত আমরা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করি আলমডাঙ্গায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় গরু ব্যবসায়ী নিহত মেহেরপুরে জমে উঠেছে শতবর্ষী বারাদী ছাগলের হাট সকালে হাইকোর্টে জামিন, বিকেলে স্থগিত জনসভায় মোদিকে খোঁচা দিয়ে রাহুল : ‘আমার ঈশ্বর জনগণ’ ফেনীতে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে স্বামী থানায় হাজির ত্রিশালে আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৬ জন আটক মেহেরপুরে কাজীপুর সীমান্তে কৃষককে পিটিয়েছে বিএসএফ ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে চসিকের দুই প্রকৌশলী ওএসডি ওয়াশিংটন অ্যাকর্ডের সিগনেটরি স্বীকৃতি আইইবির কুষ্টিয়ায় বিল থেকে চুরি হওয়া শিশুর মরদেহ উদ্ধার আমরা ভারতের বিপক্ষে শক্ত লড়াই করতে যাচ্ছি : জোন্স দেশের কারাগারে ৩৬৩ বিদেশির বেশিরভাগই ভারতের: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী