নাইকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বিচার শুরু – দৈনিক গণঅধিকার

নাইকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বিচার শুরু

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৯ মার্চ, ২০২৩ | ৫:২১
নাইকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো। রোববার কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত ঢাকার ৯ নম্বর (অস্থায়ী) বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান আসামিদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ গঠন করেন। একই সঙ্গে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ২৩ মে দিন ধার্য করেন আদালত। দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মোশাররফ হোসেন কাজল বিষয়টি জানিয়েছেন। এদিন খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী মাসুদ আহম্মেদ তালুকদার হাজিরা প্রদান করেন। মামলার আসামি খন্দকার শহীদুল ইসলাম, সিএম ইউছুফ হোসাইন ও ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া সেলিম ভূঁইয়া আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলাটি করে দুদক। দুদকের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম বাদী হয়ে রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলাটি করেছিলেন। ২০০৮ সালের ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে দুদক আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। বাকিরা হলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রয়াত মওদুদ আহমদ, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী প্রয়াত একেএম মোশাররফ হোসেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব খন্দকার শহীদুল ইসলাম, সাবেক সিনিয়র সহকারী সচিব সিএম ইউছুফ হোসাইন, বাপেক্সের সাবেক মহাব্যবস্থাপক মীর ময়নুল হক, বাপেক্সের সাবেক সচিব মো. শফিউর রহমান, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুন, ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল করপোরেশনের চেয়ারম্যান সেলিম ভূঁইয়া ও নাইকোর দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট কাশেম শরীফ। দুদকের অভিযোগপত্রে বলা হয়, ২০০১ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে সরকারে থাকাকালে খালেদা জিয়াসহ বেশ কয়েকজন ক্ষমতার অপব্যবহার করে কানাডার কোম্পানিটিকে অবৈধভাবে গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলনের সুবিধা পাইয়ে দেন। অভিযোগপত্রে আসামিদের বিরুদ্ধে প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়। আসামিদের মধ্যে গিয়াসউদ্দিন আল মামুন বর্তমানে কারাগারে আছেন। নাইকো রিসোর্সেস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের সাবেক প্রেসিডেন্ট কাশেম শরীফ পলাতক রয়েছেন। বাকিরা জামিনে আছেন।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
সাঁথিয়ায় বিয়ে বাড়িতে এসে নদীতে ডুবে কলেজছাত্র নিহত থানার সামনেই মহাসড়কে অবাধে চলছে অবৈধ যান নিখোঁজের ৭ ঘণ্টা পর কুমারখালির পদ্মা নদী থেকে তরুণের মরদেহ উদ্ধার রেলওয়েতে বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি মুখোমুখি অবস্থানে ইসরায়েল ও হিজবুল্লাহ: বৃহত্তর সংঘর্ষের আশঙ্কা বাড়ছে লিচু খাওয়ার যত উপকারিতা রাসেলস ভাইপারের কামড় খেয়ে সাপ নিয়ে হাসপাতালে কৃষক যশোরে চাঁদা না পেয়ে ৭ লাখ টাকার জাল নষ্ট করেছে সন্ত্রাসীরা আটলান্টার পিচ নিয়ে স্কালোনি-মার্তিনেজের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ‘অন্তত ১৭০ রান করা উচিত ছিল’ : শান্ত গোয়ালন্দে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, অর্থের বিনিময়ে ধামাচাপা দিতে দৌড়ঝাপ দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লি গেলেন প্রধানমন্ত্রী কুষ্টিয়ার মিরপুরে এসএসসি ৯৯ ব্যাচের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হলের জানালার গ্রিল বিক্রি করতে গিয়ে ধরা চবি ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মেসির রেকর্ডে কোপার শুরুতেই আর্জেন্টিনার জয় ইতালিকে হারিয়ে নক-আউটে স্পেন মুখোমুখি অবস্থানে সরকার ও সেনাবাহিনী, বিপদে ইসরায়েল হিটস্ট্রোক চিকিৎসায় বরফ পানির সিরামিক টাব! সুইস ব্যাংকে আর বাংলাদেশিদের আগ্রহ নেই পল্টনে এক অফিস থেকে ২ যুবকের মরদেহ উদ্ধার