ভবনের নিয়ন্ত্রণহীন মিশ্র ব্যবহারে বাড়ছে ঝুঁকি – দৈনিক গণঅধিকার

ভবনের নিয়ন্ত্রণহীন মিশ্র ব্যবহারে বাড়ছে ঝুঁকি

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৭ মার্চ, ২০২৩ | ১০:০৮ 58 ভিউ
সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ভবনে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নির্মোহ তদন্তের দাবি জানিয়ে এক আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, বিধি না মেনে ভবন নির্মাণ, এর পর সেখানে নিয়ন্ত্রণহীনভাবে আবাসন এবং বাণিজ্যিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সংশ্লিষ্টরা মানুষের জীবনহানি ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতির ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলেছেন। শুক্রবার ‘নগরে নাগরিকদের বসবাস ঝুঁকি ও জীবনের নিরাপত্তা : নগর উন্নয়ন পরিকল্পনা এবং নগর সংস্থাসমূহের ভূমিকা ও করণীয়’ শীর্ষক ভার্চুয়াল এ আলোচনা সভার আয়োজক ইনস্টিটিউট ফর প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (আইপিডি)। সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ড্যাপের প্রকল্প পরিচালক আশরাফুল ইসলাম, আইপিডির উপদেষ্টা অধ্যাপক আকতার মাহমুদ, পরিচালক চৌধুরী জাবের সাদেক, আরিফুল ইসলাম, অধ্যাপক ফরহাদুর রেজা, প্রকৌশলী ইয়াসির আরাফাত খান প্রমুখ। সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করে আইপিডির নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আদিল মুহাম্মদ খান বলেন, সারাদেশে ভবনে অগ্নিকাণ্ড, বিস্ফোরণ ও বসবাসের ঝুঁকির পেছনে দায়ী সেবা সংস্থাগুলোর নজরদারির অভাব, একই ভবনকে আবাসিক ও বাণিজ্যিক ব্যবহার, নিরাপত্তা-সংক্রান্ত বিষয়ে ভবন মালিক, ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের অবহেলা, গাফিলতিতে জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের যথাযথ শাস্তি না হওয়া এবং ভবন নির্মাণে বিদ্যমান আইন ও বিধি অনুসরণে উদাসীনতা। এ ছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রামের মতো জনবহুল শহরের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন ব্যবস্থাপনায় সঠিক মানদণ্ড অনুসরণ না করার কারণেও দুর্ঘটনা ঘটছে বলে মনে করেন তিনি। আইপিডি মনে করে, একের পর এক দুর্ঘটনার পরও কারও টনক নড়েনি। রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে অপরিকল্পিতভাবে ভবন গড়ে উঠছে। একই ভবনের বিভিন্ন তলায় রেস্টুরেন্ট, রাসায়নিক বা বিভিন্ন দাহ্য বস্তুর গুদাম এমনকি শিল্পকারখানা ও আবাসন করা হচ্ছে। জলাশয়, জলাভূমি ভরাট করে সুউচ্চ ভবন নির্মাণ করা হলেও মানা হচ্ছে না ইমারত আইন ও বিধিমালা। এতে এসব ভবনে বসবাসকারীরা যে কোনো সময় অগ্নিকাণ্ড, ভূমিকম্প, ভূমিধসের মতো বিধ্বংসী দুর্যোগের শিকার হতে পারেন। তবে এসব দুর্যোগ থেকে মানুষের জানমাল রক্ষায় নগর সংস্থা, নাগরিক ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সম্মিলিত দায়িত্ব রয়েছে। সঠিক পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা নিশ্চিতে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা জরুরি। আর এগুলো নিশ্চিতের উদ্যোগ সরকারকেই নিতে হবে বলে মনে করে সংগঠনটি।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
‘নির্বাচনি প্রিমিয়ার লিগে’ একাই খেলছেন পুতিন কুষ্টিয়ার মঙ্গলবাড়িয়ায় পিতা-পুত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার খোকসায় একাধিক মামলা থাকা সত্ত্বেও চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা খোকসায় চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা আদালত বর্জন বিএনপির আইনজীবীদের রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি: আইনমন্ত্রী বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী কুষ্টিয়ার স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠান CEL এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত ভূ-রাজনীতির ফাঁদে বাংলাদেশ শায়েস্তাগঞ্জ পূজা উদযাপন সাড়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ওসির! ইসরাইলের অভিযান নিয়ে যা বললেন পুতিন বেরিয়ে আসছে ব্যাটারদের হতশ্রী চেহারা নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটের হার উন্নয়নের কারণে আমরা উন্নত জীবন যাপন করতে পারছি: শিক্ষামন্ত্রী মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণসহ চার অগ্রাধিকার নীতি ঘোষণা চালকের কিস্তি আর সংসারের চাকা ঘুরাল ‘টিম পজিটিভ বাংলাদেশ’ রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়ার পরিণতি ভালো হয় না: ফখরুল পিটার হাসের বক্তব্যের প্রতিবাদে যা বললেন সাংবাদিকনেতারা ‘কোনো চুক্তিতে দেশে ফিরছেন না নওয়াজ শরিফ’ পদার্থে নোবেল পেলেন ৩ জন ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দমনে কঠোর অবস্থানে সরকার: বাহাউদ্দিন নাছিম