ইন্টারনেট ‘ব্ল্যাকআউট’ হলে ভোট বন্ধ: সিইসি – দৈনিক গণঅধিকার

ইন্টারনেট ‘ব্ল্যাকআউট’ হলে ভোট বন্ধ: সিইসি

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১ মার্চ, ২০২৩ | ৮:৫৭
নির্বাচনকে অস্বচ্ছ করতে ‘ইন্টারনেট ব্ল্যাকআউট’ হলে নির্বাচনকে ‘ব্ল্যাকআউট’ (বন্ধ) করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। বৃহস্পতিবার তিনি বলেছেন, নির্বাচন স্বচ্ছ হতে হবে। নির্বাচন নিয়ে কোনো কূটকৌশল করতে দেওয়া হবে না। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ধারাবাহিক সংলাপের অংশ হিসেবে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের বৈঠকে তিনি একথা বলেন। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়ালের সভাপতিত্বে এই সংলাপ হয়। দেশের ৩২ নির্বাচন পর্যবেক্ষণকারী সংস্থার প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানো হলেও ২০টির প্রতিনিধিরা অংশ নেন। সিইসি বলেন, কমিশন বিশ্বাস করে, সরকার এবং দলের মধ্যে পার্থক্য আছে। সেই বিভাজনকে ভুলে গেলে চলবে না। কমিশনকে সাহায্য করবে সরকার, দল নয়। পর্যবেক্ষদের উদ্দেশে সিইসি বলন, নির্বাচনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন অস্বচ্ছতার অভিযোগ আসছে। সেই অস্বচ্ছতাকে দূর করতে পর্যবেক্ষকরা একটা গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হতে পারেন। কাজেই পর্যবেক্ষকদের আরও বেশি প্রশিক্ষিত হতে হবে। নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব অর্থায়নে কিছু প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা উচিত বলেও তিনি মন্তব্য করেন। নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের আগ্রহের কথা জানিয়ে সিইসি বলেন, ইভিএম খুবই সুবিধাজনক। ইভিএম মেশিন এতদিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিজেও এটা বুঝেছেন। যদি এর সপক্ষে সমর্থন পান এবং নেতিবাচক দিকগুলো সম্পর্কে সন্দেহ দূর করতে পারেন, তাহলে যুক্তিসংগত ব্যবহার করেও ভোটকে কিছুটা অহিংস করে তোলা সম্ভব হবে। কারণ ওখানে গিয়ে একজনের ১০টি ভোট দেওয়ার সুযোগ থাকবে না। আরেকজন ৫০টি ব্যালট ছিনতাই করে ভোট দিতে পারবে না। কারণ, আগে আইডেনটিফায়েড হতে হবে, পরে বায়োমেট্রিপ মিলতে হবে। সিইসি বলেন, নৈতিকতার দিক থেকে আমরা অনেক পিছিয়ে গেছি। আমাদের সংস্কৃতি-কৃষ্টি গঠিত হয় নৈতিক মূল্যবোধ দিয়ে। এই জিনিসটা চর্চা করতে হবে। শুধু নির্বাচনসংক্রান্ত নয়, সকল কিছুতে নৈতিক মূল্যবোধ ক্ষয়ে গেছে। সেটিকে পুনরুদ্ধার করতে হবে। সিইসি বলেন, অনেকে বলেছেন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হওয়ার কারণে সামাজিক সমস্যা হচ্ছে। তিনি নিজেও দেখেছেন গ্রামে নতুন এক ধরনের সহিংসতা তৈরি হয়েছে। সেখান থেকে আমাদের বেরিয়ে আসা উচিত। তিনি বলেন, নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক না হলে প্রকৃত অর্থে সেটা নির্বাচন হয় না। ২০০ থেকে ২৫০ আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে হয়তো সরকার গঠন হবে, কিন্তু তার লেজিটেমেসি অনেক কমে যাবে। নির্বাচনে প্রতিযোগিতা প্রত্যাশিত, অংশগ্রহণ প্রত্যাশিত। বিরোধী দলগুলোকে সাহস নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। দৃঢ়ভাবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। মানবাধিকার ও সমাজ উন্নয়ন সংস্থার চেয়ারম্যান গোলাম রহমান ভুইয়া বলেন, ইভিএমের ভিতরে জিনের উপস্থিতি আছে। সেই জিন দূর করতে হবে। মুভ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সাইফুল হক বলেন, গত কয়েক নির্বাচনে ভোট না দিতে পারার কারণে নতুন ভোটারদের মধ্যে অনীহা ও ভীতি জন্মেছে। ইসির ইমেজ সংকটে রয়েছে বলে মনে করেন লুৎফুর রহমান ভুইয়া ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সুলতানা রাজিয়া। একদিনে সব জায়গায় ভোট না করার পরামর্শ দেন পর্যবেক্ষক সংস্থা ডরপের চেয়ারম্যান আজহার আলী তালুকদার। এছাড়া বেশ কয়েকজন পর্যবেক্ষক ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা না করার পরামর্শ দেন।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন খুলনায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা আবেদ আলীর ছেলে সিয়ামকে উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় না হওয়ায় দেশের অর্ধেক রোগী বিদেশে চলে যান : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদারীপুরে দুই শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু; আটক মা ২ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অপরাধে মধুখালীতে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অপসারণ চন্দনা কমিউটার ট্রেনের স্টপেজ পেলো ফরিদপুর ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লিফটের জন্য ব্যাপক ভোগান্তি পাবিপ্রবিতে কোটা সংস্কার দাবিতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল দৌলতদিয়ায় বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে পদ্মার পানি বালিয়াকান্দিতে স্কুলের সামনে ইজিবাইকচাপায় ছাত্রী নিহত বেনাপোলে ১৮ টি সোনার বারসহ আটক ১ চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ৮ টি সোনার বারসহ যুবক আটক আবারও কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছে ১৩ কিশোর-কিশোরী বেনাপোল সীমান্তে ৯টি সোনার বারসহ আটক ১ যশোরে ‘জিন সাপ’ আতঙ্ক, হাসপাতালে ভর্তি ১০ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২১৬ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আয় বেনাপোল কাস্টমসে যশোরে সিজার অপারেশন করলেন নাক কান গলার চিকিৎসক কোটা সংস্কারের দাবিতে ফের কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের