বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি মনে করে কাঁদলেন মসিউর – দৈনিক গণঅধিকার

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি মনে করে কাঁদলেন মসিউর

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১৭ আগস্ট, ২০২৩ | ৫:০৭ 44 ভিউ
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিকবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান। তিনি বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্যে থেকে তার পার্সোনাল সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। সেই স্মৃতি তুলে ধরে মসিউর বলেন, বঙ্গবন্ধুর মতো উদার মনের মানুষ আমি আর দেখিনি। এ সময় তিনি বিভিন্ন সময়ের এবং ঘটনার বর্ণনা তুলে ধরেন। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) বঙ্গবন্ধুকে কাছে থেকে দেখা-তৃতীয় পর্ব শীর্ষক আলোচনাসভায় তিনি স্মৃতিচারণ করে কেঁদে ফেলেন। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিআইডিএস সম্মেলনকক্ষে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। বিআইডিএসের মহাপরিচালক ড. বিনায়ক সেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ড. মসিউর রহমান। বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি ও খনিজসম্পদ উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, জাতীয় সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন এবং প্রবীণ রাজনীতিবিদ মোজাহিদুল ইসলাম সেলিম। ড. মসিউর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আমার শেষ দেখা হয় ‘৭৪ সালে যখন আমি বিদেশে ডক্টরেট করতে যাই তখন। আমি ও আমার স্ত্রী বিদায় নেওয়া জন্য ওনার বাসায় যাই। সেখানে একজন রাষ্ট্রের প্রধান হয়েও বঙ্গবন্ধু নিজেই নিচে নেমে এসে আমার মতো ছোট কর্মচারীর গাড়ির দরজা খুলে দেন। আমার স্ত্রীর মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করেন। পরে আমাকে তিনি বলেন, টাকাপয়সার কোনো সমস্যা হলে আমাকে ও অথবা ফরাস উদ্দিনকে বললে টাকা পাঠিয়ে দেবে। কষ্ট করার দরকার নেই। পড়ালেখা শেষ করে আবার দেশে ফিরে আসিও। এ কথা বলার সময় তার কণ্ঠ জড়িয়ে আসে। বাকরুদ্ধ হয়ে যান। চোখের পানি মুছতে দেখা গেছে তাকে। বিভিন্ন সময়ের ঘটনা বর্ণনা করতে গিয়ে মসিউর বলেন, বঙ্গবন্ধুর সমাজতন্ত্র ছিল সাধারণ মানুষের কল্যাণে। তিনি ভিন্নমতের হলেও স্বাধীনতার পক্ষে অবস্থান নেওয়া যে কোনো নেতার উপকার করতে ভাবতেন না। কমিউনিস্টসহ বাম দলের বড় বড় নেতাদের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল নিবিড়। তিনি খুব সহজে তাদের কাছে টানতেন।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
কুষ্টিয়ার স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠান CEL এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত ভূ-রাজনীতির ফাঁদে বাংলাদেশ শায়েস্তাগঞ্জ পূজা উদযাপন সাড়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ওসির! ইসরাইলের অভিযান নিয়ে যা বললেন পুতিন বেরিয়ে আসছে ব্যাটারদের হতশ্রী চেহারা নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটের হার উন্নয়নের কারণে আমরা উন্নত জীবন যাপন করতে পারছি: শিক্ষামন্ত্রী মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণসহ চার অগ্রাধিকার নীতি ঘোষণা চালকের কিস্তি আর সংসারের চাকা ঘুরাল ‘টিম পজিটিভ বাংলাদেশ’ রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়ার পরিণতি ভালো হয় না: ফখরুল পিটার হাসের বক্তব্যের প্রতিবাদে যা বললেন সাংবাদিকনেতারা ‘কোনো চুক্তিতে দেশে ফিরছেন না নওয়াজ শরিফ’ পদার্থে নোবেল পেলেন ৩ জন ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দমনে কঠোর অবস্থানে সরকার: বাহাউদ্দিন নাছিম সেপ্টেম্বরে সারা দেশে ১৫৭৭ অগ্নিকাণ্ড, ১১ প্রাণহানি ৩ মেয়েকে হত্যার পর নিখোঁজের নাটক মা-বাবার! এবার অগ্নিসংযোগের মতো ঘটনা ঘটালে রেহাই নেই: প্রধানমন্ত্রী এবার দুদকের মামলায় ড. ইউনূসসহ ১৩ জনকে তলব ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দমনে কঠোর অবস্থানে সরকার: বাহাউদ্দিন নাছিম ডেঙ্গুতে সহস্রাধিক মৃত্যু শক সিনড্রোমের রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে