ভারতের লোকসভায় অনাস্থা ভোটে মোদির জয় – দৈনিক গণঅধিকার

ভারতের লোকসভায় অনাস্থা ভোটে মোদির জয়

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১১ আগস্ট, ২০২৩ | ৭:৪১ 35 ভিউ
ভারতের লোকসভায় আনা বিরোধীদের অনাস্থা প্রস্তাব উতরে গেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যদিও সংসদে মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) এবং মিত্রদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় তার সরকার ভোটে হারবে না বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। তারপরও এই ভোটকে ‘ভারতের মানহানি’ করার জন্য বিরোধী দলগুলোর প্রচেষ্টা হিসেবে দেখছেন মোদি। পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভায় মণিপুরের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে মোদি বক্তৃতা দেওয়ার পর সরকারদলীয় এমপিদের কণ্ঠভোটে খারিজ হয়ে যায় এ প্রস্তাব। বিরোধী নেতারা অবশ্য বলছেন, মণিপুরে জাতিগত সংঘাতের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কথা বলতে বাধ্য করার জন্যই ভোটের আয়োজন করা হয়েছিল। ভারতের উত্তর-পূর্বের রাজ্যটিতে বিজেপির শাসন চলছে। মে মাসে আদালতের এক রায় নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ মেইতি ও উপজাতি কুকি সংখ্যালঘুদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ১৫০ জনেরও বেশি। বাস্তুচ্যুত হয়েছে কয়েক হাজার মানুষ। শুরুতে চুপ থাকলেও দুই নারীকে নগ্ন করে গ্রামে ঘোরানোর ভিডিও ভাইরাল হলে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন মোদি। তিনি জানান, দোষীদের অবশ্যই সাজার আওতায় আনা হবে। ২০ জুলাই শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে বিরোধীরা বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ জানান। তারা দাবি করেন, এই সহিংসতার বিষয়ে ভাষণ দেবেন মোদি। বৃহস্পতিবার অনাস্থা ভোটের আগে মোদি তার এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে দেওয়া ভাষণে মণিপুরের বিষয়টি না আনলে বিরোধীরা সংসদ থেকে ওয়াকআউট করেন। তবে বক্তৃতার শেষের দিকে মোদি কথা বলেন মণিপুর ইস্যুতে। তিনি বলেন, ‘ফেডারেল এবং রাজ্য সরকার রাজ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনতে এক হয়ে কাজ করছে।’ মোদি বলেন, ‘আমি মণিপুরের জনগণকেও বলতে চাই, দেশ আপনাদের সঙ্গে আছে। আমরা এক হয়ে এই চ্যালেঞ্জের সমাধান খুঁজে বের করব।’ ভাষণে মণিপুর নিয়ে ‘রাজনৈতিক খেলা’র জন্য বিরোধীদের অভিযুক্ত করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘তাদের ভারতের জনগণের ওপর, ক্ষমতার ওপর আস্থা নেই। তারা এই অনাস্থা ভোট দিয়ে ভারতীয়দের আত্মবিশ্বাস ভাঙার ব্যর্থ চেষ্টা করেছে।’ ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর এমন ঘটনা দ্বিতীয়বার ঘটল মোদি সরকারের সঙ্গে। ২০১৮ সালে এক আইনপ্রণেতা দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যকে একটি বিশেষ বিভাগের মর্যাদা দেওয়ার বিষয়ে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেছিলেন। ১২ ঘণ্টা বিতর্কের পর এটি খারিজ হয়ে যায়।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
‘নির্বাচনি প্রিমিয়ার লিগে’ একাই খেলছেন পুতিন কুষ্টিয়ার মঙ্গলবাড়িয়ায় পিতা-পুত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার খোকসায় একাধিক মামলা থাকা সত্ত্বেও চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা খোকসায় চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা আদালত বর্জন বিএনপির আইনজীবীদের রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি: আইনমন্ত্রী বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী কুষ্টিয়ার স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। স্বনামধন্য ইংলিশ প্রতিষ্ঠান CEL এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত ভূ-রাজনীতির ফাঁদে বাংলাদেশ শায়েস্তাগঞ্জ পূজা উদযাপন সাড়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ওসির! ইসরাইলের অভিযান নিয়ে যা বললেন পুতিন বেরিয়ে আসছে ব্যাটারদের হতশ্রী চেহারা নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটের হার উন্নয়নের কারণে আমরা উন্নত জীবন যাপন করতে পারছি: শিক্ষামন্ত্রী মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণসহ চার অগ্রাধিকার নীতি ঘোষণা চালকের কিস্তি আর সংসারের চাকা ঘুরাল ‘টিম পজিটিভ বাংলাদেশ’ রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়ার পরিণতি ভালো হয় না: ফখরুল পিটার হাসের বক্তব্যের প্রতিবাদে যা বললেন সাংবাদিকনেতারা ‘কোনো চুক্তিতে দেশে ফিরছেন না নওয়াজ শরিফ’ পদার্থে নোবেল পেলেন ৩ জন ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দমনে কঠোর অবস্থানে সরকার: বাহাউদ্দিন নাছিম