খোকসায় একাধিক মামলা থাকা সত্ত্বেও চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা – দৈনিক গণঅধিকার

খোকসায় একাধিক মামলা থাকা সত্ত্বেও চলছে ভেজাল গুড়ের কারখানা

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানেও বন্ধ হয়নি কারখানাটি

রুহুল আমীন
আপডেটঃ ২৪ জানুয়ারি, ২০২৪ | ৬:২২
কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলাতে বছরের পর বছর ধরে ভেজাল গুড়ের কারখানা মেসার্স দিলীপ ট্রেডার্স ভেজাল গুড় তৈরি করে আসছে। এক প্রকার প্রশাসন কে বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে চলে তাদের কারবার। তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক মামলা। বেশ কয়েকবার হয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। একাধিক বার সীলগালা করা হয়েছে কারখানাটি। সর্বশেষ (২৩ শে জানুয়ারি ২০২৪) মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিধান কান্তি হালদারের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হলেও এতে কারখানাটির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি। সাধারণ মানুষের ভাস্য লোক দেখানো অভিযান করে উপজেলা প্রশাসন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, কারখানাটির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, নিন্মমানের চিনির সাথে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক দ্রব্য মিশিয়ে ভেজাল আঁখের গুড় তৈরীর । প্রতিষ্ঠানের প্রধান দিলীপ বিশ্বাস সষ্ঠী ও তার ভাই রাজকুমার বিশ্বাস এই সব পরিচালনা করে থাকেন। এর পরেও অদৃশ্য শক্তির বলে বারবার পাড় পেয়ে যায় ভেজাল কারবারিরা। এবং পূনরায় শুরু করে তাদের ভেজাল কারবার। মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খোকসা উপজেলার বাজারের ডাকবাংলো রোডে মেসার্স দিলীপ ট্রেডার্স ও কালীবাড়ি রোডে নিত্য গোপালের ভেজাল গুড়ের কারখানায় চলছে ভেজাল উৎপাদন। চিনির সাথে নাম মাত্র গুড়ের সংমিশ্রণে মানব দেহের ক্ষতিতকারক ক্যামিকেল মিশিয়ে জমাট বাঁধিয়ে বাজারজাত করা হচ্ছে। কারখানাটির নেই কোন পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র বা বিএসটিআই অনুমোদিত কোন কাগজপত্র। এতো কিছুর পরেও ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে চলে যায়। এতে করে সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন থেকেই যায়। দিলীপ বিশ্বাস সষ্ঠী বলেন, আমাদের কারখানাটির মধ্যে কোন ভেজাল গুড় তৈরি করা হয় না। আমরা সব নিয়মকানুন মেনে গুড় তৈরি করি। নিবার্হি ম্যাজিস্ট্রেট বিধান কান্তি হালদার বলেন, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তেমন কোন ভেজাল কিছু পাওয়া যায়নি। তবে কারখানাটির মধ্যে গুড় তৈরির পরিবেশ টা ঘাটতি রয়েছে। কারখানাটির মালিক পক্ষের লোকজনের সঙ্গে কথা হয়েছে, তাদের সকল কাগজপত্র নিয়ে অফিসে দেখা করতে বলা হয়েছে।

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
তাপদাহে আয় কমেছে নিন্ম আয়ের শ্রমজীবীদের গোদাগাড়ীতে মাদক মামলা দেওয়ায় পুলিশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার আওয়ামী লীগের সমাবেশ শুরু, স্লোগান কম দেওয়ার আহ্বান নিউমার্কেট সায়েন্সল্যাব চাঁদাবাজদের স্বর্গরাজ্য ‘ঠেকায়ে কারও কাছে কিছু নেইনি, কাউরে উপকার করে যদি…’: এসআই ওবায়েদুর রহমান বীর বাঙালি মুক্তির শপথে অনড় উৎস চিহ্নিত, প্রতিকারে নেই কার্যকর উদ্যোগ চট্টগ্রামে নির্দেশনা মানছেন না ব্যবসায়ী-আড়তদাররা গাজায় ২,০০০ টন খাদ্য পাঠাল যুক্তরাজ্য ইউক্রেনের পতন ঠেকাবে যুক্তরাষ্ট্র ক্যানসারের টিউমার অপসারণে বিশ্ব রেকর্ড রুশ চিকিৎসকদের পুলিশ না চাইলে ফুটপাতে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে না চীন পরিচালিত পাকিস্তানের সমুদ্র বন্দরে হামলা, নিহত ৮ দেশের জনগণ ত্রিশঙ্কু অবস্থায় রয়েছে: মির্জা আব্বাস সরকারি চাকরিতে ঢুকলেই পেনশন স্কিম বাধ্যতামূলক এবার সাকিবকে একহাত নিলেন রুমিন ফারহানা ‘দেশের মানুষ খেতে পায় না, আ.লীগ নেতারা বিদেশে সম্পদ গড়ে’ প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কাছে বিএনপি-জামায়াত পরাজিত হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১৮শ বছরের পুরোনো রোমান মূর্তি ঈদে যেসব ব্যাংকে নতুন নোট মিলবে ৩১ মার্চ থেকে