মধুমাসের ফলে ছেয়ে গেছে বাজার, মূল্য ক্রয়ক্ষমতার উর্ধ্বে – দৈনিক গণঅধিকার

মধুমাসের ফলে ছেয়ে গেছে বাজার, মূল্য ক্রয়ক্ষমতার উর্ধ্বে

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ ১ জুন, ২০২৪ | ১১:১৪
মধুমাস জৈষ্ঠ্য। কারণ বেশির ভাগ রসালো ফল এ মাসেই বাজারে আসতে শুরু করে। সুস্বাদু ফলের অধিক সরবরাহ থাকায় সবার কাছে মাসটি পরিচিত। বছরজুড়ে কমবেশি সব ফল পাওয়া গেলেও সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায় এই মাসে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। বিভিন্ন রসালো ফলের সমাহার এখন রাজধানীর ফলবাজারে। সরেজমিনে দেখা যায়, আম, কাঁঠাল, লিচু, তাল, আনারস, জামরুল ইত্যাদি ফলের পসরা সাজিয়েছেন বিক্রেতারা। মৌসুম শেষ হলেও বেল, বাঙ্গি ও তরমুজ দেখা গেছে বাজারে। গ্রীষ্মকালীন ফলের মধ্যে বর্তমানে বাজারে ক্রেতাদের চাহিদার শীর্ষে রয়েছে আম ও লিচু। তবে দাম বেশি জানান ক্রেতারা। এ ছাড়া নগরীর প্রায় প্রতিটি পাড়া-মহল্লা ও ফুটপাতে ভ্যানে করেও মৌসুমি এসব ফল বিক্রি হচ্ছে। রাজধানীর ভ্রাম্যমাণ দোকানগুলোয় ফল বিক্রি হচ্ছে বাজারের চেয়ে কিছুটা কম দামে। সদরঘাট এলাকায় ফুটপাতে ফল বিক্রি করা রাজিব বলেন, ‘গ্রীষ্মকালে হরেক রকমের ফল পাওয়া যায়, যা অন্য সময়ে পাওয়া যায় না। আর পাওয়া গেলেও দাম অনেক বেশি থাকে। সে জন্য বেচাকেনায় তেমন একটা সুবিধা হয় না। এখন দাম মোটামুটি কম, কাস্টমারও বেশি। আমি খুচরা এক কেজি রুপালি আম ১২০ আর হিমসাগর ১১০ টাকায় বিক্রি করছি। লিচুর শত ৪০০ টাকা।’ শিপন নামে আরেক বিক্রেতা বলেন, ‘সব ফলের চাহিদাই মোটামুটি ভালো। আম আর লিচুর চাহিদা একটু বেশি। বেচাকেনা ভালো হচ্ছে। আমরা পাইকারি দাম থেকে প্রতি কেজি আমে ১৫ থেকে ২০ টাকা লাভ করি। আর ১০০ লিচু বিক্রি করলে ৫০ টাকা লাভ হয়। বেচাকেনা বেশি হচ্ছে দেখে অল্প লাভেও দৈনিক ১ হাজার ৫০০ থেকে ২ হাজার টাকা আয় হচ্ছে।’ পুরান ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে ফুটপাতে বসা এক ফল বিক্রেতার সঙ্গে দরদাম করছিলেন ছিদ্দিক সরদার নামে এক ক্রেতা। তিনি বলেন, ‘দাম তুলনামূলক বেশি। আশা করি আরও কমবে। এখন যে আমের কেজি ১২০ টাকা, সেই আম সপ্তাহখানেক পর ৬০ থেকে ৭০ টাকা কেজি হবে। ১০০ লিচু বিক্রি করছে ৪০০ টাকায়। দাম কমলে ১০০ লিচু ২০০ থেকে ২৫০ টাকায় বিক্রি করবে।’ সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে ফল কিনতে আসা জাহিদ হোসেন বলেন, ‘এখন ফলের সিজন, তাই দাম নাগালের মধ্যে। এ জন্য চেষ্টা করি প্রতিদিনই পরিবারের জন্য ফল নিয়ে যেতে। বাসায় বৃদ্ধ বাবা-মা আছেন। সন্তানরাও ফল অনেক পছন্দ করে। বিশেষ করে লিচু। শুরু থেকেই লিচুর দাম বেশি, এখনও কমেনি। সবাই একজোট হয়ে এক দামে বিক্রি করছে। তবু কিনছি, কারণ এখন না নিলে পরে পাওয়া যাবে না।’ এদিকে অনলাইন প্ল্যাটফর্মেও গ্রীষ্মের বিভিন্ন ধরনের ফল বিক্রি হচ্ছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে আম। অনলাইনে আম বিক্রেতাদের একাংশ বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন মৌসুমি ফল বিক্রি করেন তারা। তাদের একজন মো. সালমান হাবিব। তিনি রাজধানীর একটি স্বনামধন্য কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। অনলাইনে আম বিক্রির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে এসএসসি পরীক্ষার পর থেকে আমি টিউশনি করে নিজের খরচ নিজেই চালাই। গত বছর মাথায় এলো এর পাশাপাশি কী করা যায়। আমার এক বন্ধুর বাড়ি সাতক্ষীরা। সে বললো, তাদের এলাকার হিমসাগর আম অনলাইনে বিক্রি করতে। প্রথমে তেমন সাড়া না পেলেও এখন ভালো বিক্রি হচ্ছে।’ লাভের বিষয়ে এই শিক্ষার্থী বলেন, ‘গত এক সপ্তাহে আমি ২২০ কেজি আম বিক্রি করেছি। কেজি প্রতি হিমসাগর ১৩০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করেছি। বেশি আম কিনলে ডেলিভারি চার্জ ফ্রি। একসঙ্গে ২০ কেজির বেশি আম কিনলে কেজি প্রতি আরও ১০ থেকে ১৫ টাকা কম। তিনি বলেন, তবে হোম ডেলিভারির ক্ষেত্রে প্রতি কেজিতে বাড়তি ১০ টাকা করে গুনতে হয়। বাগান থেকে সংগ্রহ করে মানুষের বাসায় পৌঁছে দিয়ে সব খরচ বাদে আমার কেজি প্রতি ২৫ থেকে ৩০ টাকা লাভ হয়। টিউশনির পাশাপাশি অনলাইনের এই ব্যবসা আমার বাড়তি আয়ের পথ তৈরি করেছে। সবকিছু মিলিয়ে আমি সন্তুষ্ট।’

দৈনিক গণঅধিকার সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন খুলনায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা আবেদ আলীর ছেলে সিয়ামকে উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় না হওয়ায় দেশের অর্ধেক রোগী বিদেশে চলে যান : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদারীপুরে দুই শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু; আটক মা ২ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অপরাধে মধুখালীতে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অপসারণ চন্দনা কমিউটার ট্রেনের স্টপেজ পেলো ফরিদপুর ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লিফটের জন্য ব্যাপক ভোগান্তি পাবিপ্রবিতে কোটা সংস্কার দাবিতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল দৌলতদিয়ায় বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে পদ্মার পানি বালিয়াকান্দিতে স্কুলের সামনে ইজিবাইকচাপায় ছাত্রী নিহত বেনাপোলে ১৮ টি সোনার বারসহ আটক ১ চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ৮ টি সোনার বারসহ যুবক আটক আবারও কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছে ১৩ কিশোর-কিশোরী বেনাপোল সীমান্তে ৯টি সোনার বারসহ আটক ১ যশোরে ‘জিন সাপ’ আতঙ্ক, হাসপাতালে ভর্তি ১০ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২১৬ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আয় বেনাপোল কাস্টমসে যশোরে সিজার অপারেশন করলেন নাক কান গলার চিকিৎসক কোটা সংস্কারের দাবিতে ফের কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ ইবি শিক্ষার্থীদের